টনিক কেন খাবেন??

b207abba91ea3b73d8e0e4c814950262কারোর হাড়গিলে চেহারার ছেলে,মায়ের আর্জি ডাক্তারের কাছে, ডাক্তারবাবু একটা টনিক লিখে দিন। পেশীবহুল চেহারার মানুষ, তিনিও ডাক্তারের কাছে আর্জি জানাচ্ছেন। কেমন এনার্জি পাচ্ছেন না, একটা টনিক লিখে দিন! অনেককেই দেখা যায় প্রতিদিন দুপুরে ও রাত্রে খাওয়ার পর ভিটামিন ট্যাবলেট বা টনিক খাচ্ছে।

শরীরের জন্য ভিটামিন আবশ্যিক প্রয়োজন। আমরা সারাদিনে যে খাদ্য গ্রহন করি যেমন- চাল,গম, ডাল, ফল, শাকসবজি, মাছ, মাংস ও ডিম ইত্যাদিতে আমাদের শরীরের প্রয়োজনীয় ভিটামিন জোগাড় হয়ে যায়। অনেক সময় কোন কিছুর ঘাটতি থাকলে তখন ভিটামিন যুক্ত ক্যাপসুল বা টনিকের প্রয়োজন।

কত রকমের টনিক। লিভার টনিক,আয়রন টনিক, মাল্টি ভিটামিন টনিক, ব্রেন টনিক। কি আছে এই টনিকে একটু দেখে নেওয়া যাক।

ভিটামিন টনিকঃ  দুটো বিভাগে এরা বিভাজিত। এ, ডি, ই, কে ও জলে দ্রবীভূত বি গ্রুপের সব ভিটামিন এবং ভিটামিন সি। বহুল প্রচলিত ভিটামিন হোল নানা ধরনের ভিটামিনের খিচুড়ি। সঙ্গে মিনারেলস বা স্নায়ু উত্তেজক নিউরো ফসফেট, ক্যাফিন ও স্টিকনিন। যার বেশিরভাগটাই  মুত্রের সঙ্গে শরীর থেকে বেরিয়ে যায়। কারন আমাদের শরীরে দরকার পড়ে না।

লিভার টনিকঃ লিভার আমাদের শরীরের কোনও হেলাফেলার অঙ্গ নয়। অত সহজে অসুস্থ হয়না যদিনা কেউ মাত্রাতিরিক্ত অত্যাচার বা অবহেলা করে। লিভারে অসংখ্য কোষ থাকে, যার দশ ভাগের একভাগও যদি সুস্থ থাকে তাহলেই একটা মানুষের দিব্বি চলে যায়। কিন্তু বিষয়টা না জেনেই আমরা মুড়িমুড়কির মতো লিভার ট্যাবলেট বা টনিক খেয়ে থাকি।

বাইলসল্ট, কোলিন, মিথিওনিন নামের অ্যামাইনো অ্যাসিড এবং সরবিটল নামে একধরনের কার্বোহাইড্রেড, যা লিভারে পৌঁছনোর আগেই অন্ত্রনালি শুষে নেয়। ফলে কি উপকার আর কি অপকার! আমরা প্রতিদিন যা আহার গ্রহন করি তাতেই কোলিন ও মিথিওনিন এর প্রয়োজন মিটে যায়। তাই লিভার ঠিক রাখতে কোনও ট্যাবলেট বা টনিকের প্রয়োজন নেই।

ব্রেন টনিকঃ ছেলে-মেয়ে পরীক্ষায় কম নম্বর পেলেই বাবা- মায়ের কপালে ভাঁজ। ব্রেনের শক্তিবৃদ্ধি করতে হবে, তাই বিজ্ঞাপনের ফাঁদে পড়ে নানা ধরনের ট্যাবলেট ও টনিকের প্রয়োগ ছেলে- মেয়ের ওপর। ব্রাম্ভি শাক খেলে মস্তিস্কে রক্ত সঞ্চালন বাড়ে। পিরাসেটাম গোত্রের ওষুধও মস্তিস্কে রক্ত সঞ্চালন বাড়াতে সাহায্য করে। নিমোডিপিন গোত্রের ওষুধ মস্তিস্কে ক্যালসিয়াম বাড়ায়। ডাই হাইড্রো অর্গাটামিন গোত্রের ওষুধ মস্তিস্কের ক্লান্তি দূর করে কিন্তু এই গোত্রের ওষুধগুলি খেলে বুদ্ধি বাড়ে এমন বৈজ্ঞানিক প্রমান নেই।

তাই, ট্যাবলেট ও টনিক খাওয়ার আগে দুবার ভাবুন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *