জানেন কি- ট্রি-ম্যান রোগটি কি ??

downloadকখনও ভেবেছেন কি মানুষের শরীরে গাছপালার শিকড় বাকড় জন্মাচ্ছে?হ্যাঁ-এমনও হয়।এই বিরল রোগটির নাম ট্রি-ম্যান।আজ অবধি সারা পৃথিবীতে মাত্র পাঁচ জন মানুষ এই রোগে আক্রান্ত হয়েছে বলে জানা যাচ্ছে।রোগটির বৈজ্ঞানিক নাম “এপিডারমোডিসপ্লাসিয়া ভেরুসিফরমিস”

“হিউম্যান প্যাপিলোমা” নামে এক ধরনের ভাইরাস মানব শরীরে আক্রমন করলে রোগটির সৃষ্টি হয়।মানব দেহে এইচপিভি টাইপ ৫ ও টাইপ ৮ বেড়ে গেলে এই রোগ মানব শরীরে আক্রমন করে।“হিউম্যান প্যাপিলোমা” এমনই এক ভাইরাস যা শরীরের আদ্র ঝিল্লিকে আক্রান্ত করে।

ট্রি-ম্যান রোগে আক্রান্ত ব্যক্তির প্রথমে মুখ,ঘাড়,বুক,পিঠ এবং গোপন অঙ্গে লালচে বা বাদামি আঁশযুক্ত চেপ্টা চেপ্টা ফুসকুড়ি দেখা দেয়।ফুসকুড়িগুলি খুব দ্রুত সারা শরীরে ছড়িয়ে পড়ে।এর পরে হাতের তালু,হাতের আঙ্গুল,পায়ের আঙ্গুলগুলো গাছের শেকড়ের আকার নেয়।

রোগটির সন্ধান সর্বপ্রথম ২০০৭ সালে ইন্দোনেশিয়ায় এক মাছ ধরা জেলের শরীরে দেখতে পাওয়া যায়।এই জেলের শরীর অস্ত্রোপচার করে ৮ কিলোগ্রাম মাংস আলাদা করা হয়।২০০৮ সালে এই অস্ত্রোপচারটি ডিসকভারি চ্যানেলে সরাসরি সম্প্রচার করা হয়েছিল।সর্বশেষ এই রোগে আক্রান্ত ব্যক্তির খবর পাওয়া গেছে বাংলাদেশে।

image

এখনও পর্যন্ত এই রোগের কোন চিকিৎসা আবিষ্কৃত হয়নি।চিকিৎসকরা চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন।যদিও আজ অবধি আক্রান্ত ব্যক্তিকে চিকিৎসকেরা যে সমস্থ ওষুধ প্রয়োগ করছেন তা নিয়ে চিকিৎসক মহলে দ্বিমত আছে।               

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *