কান চুলকানোর অভ্যাস আপনার মারাত্তক ক্ষতি করে দিতে পারে।

ear-itch-remedies1বাংলায় একটা প্রবাদ বাক্য আছে- ‘বিকৃত করিয়া মুখ, চুলকাইতে বড় সুখ’। আমাদের শরীরে মোট পাঁচটা ইন্দ্রিয় আছে তার মধ্যে কান অন্যতম। আমাদের একটা বদভ্যাস হোল কান একটু চুলকালেই কানের মধ্যে হাতের সামনে যা পাই তাই দিয়ে চুলকাতে আরম্ভ করি। এই বদভ্যাসের ফলে যেকোনো সময় মারাত্তক অঘটন ঘটে যেতে পারে।

এবার জেনে নেওয়া যাক কি কি কারনে কান চুলকায়।কান চুলকায় ফাঙ্গাস জনিত কারনে। কানের ভেতর জল প্রবেশ করার জন্য। ফোড়া বা ইনফেকশনের জন্য বা কানের ভেতরে ত্বকের সমস্যার জন্য চুলকানি হতে পারে। অনেক সময় নার্ভাসনেসের কারনে, এলার্জির কারনে বা ডায়াবেটিস রুগীদের কান চুলকায়।

যারা ইয়ারফোন, হিয়ারিং এড ব্যবহার করেন বা যারা চুলে কলপ করেন তাদেরও হতে পারে।

কান চুলকালে কি দিয়ে চুলকাবেন এটা বলা খুব কঠিন। তবে চিকিৎসকরা পরামর্শ দেন, কান চুলকালে কোনও অবস্থাতেই খোঁচাখুঁচি করবেন না।

কান চুলকালে কানে কাঠি বা পাখির পালক দিয়ে চুলকাবেন না। কোনও ধাতব কিছু দিয়ে তো একদমই কারন এতে কানের পর্দা ফেটে যাওয়ার সম্ভাবনা থাকে। অনেক সময় মহিলারা শাড়ির আঁচলকে পাকিয়ে সরু করে পাকিয়ে কান চুলকান, সেটা করা উচিৎ নয়। বরং তুলোর সলতে পাকিয়ে কানে সুড়সুড়ি দেওয়া যেতে পারে।তাহলে প্রস্ন দাঁড়ায় কান খোঁচানো থেকে নিস্কৃতি পাওয়ার উপায়? আছে। মাঝে মাঝে কান পরিস্কার করিয়ে নেওয়া।

ফ্রেমাইসিটিসালফেট লোসন কানে দিতে পারেন তবে এই ওষুধ লাগালে ইয়ারবাড ব্যবহার করতে হবে।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *