আজ ১৭ই জুন, বিশ্বসেরা ভারতীয় টেনিস খেলোয়াড়- “লিয়েন্ডার পেজে”র জন্মদিন।

Paes_WM13-009_(9495560679)ফিচার ডেস্কঃ  লিয়েন্ডার আর্দ্রিয়ান পেজ কিন্তু বিশ্বজোড়া পরিচিতি লিয়েন্ডার পেজ  নামে।অনেকে আদর করে ‘লি’ নামেও ডাকে।১৭ই জুন,১৯৭৩ সালে কলকাতায় জন্ম ও বেড়ে ওঠা এই ভারতীয় টেনিস খেলোয়াড়ের।মা জেনিফার পেজ,বাবা ভেস পেজ দুজনেই বিখ্যাত খেলোয়াড়।জেনিফার এশীয় বাস্কেটবল প্রতিযোগিতায় ভারতীয় দলের নেতৃত্ব দেন এছাড়াও জেনিফারের আরও একটা পরিচয় আছে,তিনি প্রখ্যাত কবি মাইকেল মধুসূদন দত্তের বংশধর।বাবা ভেস পেজ প্রখ্যাত হকি খেলোয়াড় যিনি ১৯৭২ সালে মিউনিখ অলিম্পিকে ব্রোঞ্জপদক জয়ী ভারতীয় দলের সদস্য ছিলেন।

১৯৮৫ সালে লিয়েন্ডার মাদ্রাজের ব্রিটানিয়া টেনিস আকাডেমীতে যোগ দেন। ১৯৯১ সালে পেজ প্রথম ইউএস ওপেন ও জুনিয়ার উইম্বলডন খেতাব জয় লাভ করেন।তিনি পেশাদার খেলোয়াড় হিসেবে ১৯৯১ সালে আত্মপ্রকাশ করেন।একই বছর ১৯৯২ সালে তিনি রমেশ কৃষ্ণানের সাথে বার্সেলোণা অলিম্পিকের দ্বৈত প্রতিযোগীতায় কোয়ার্টার ফাইনালে পৌছান।১৯৯৬ সালে আটলান্টা অলিম্পিকে ফারনান্দ মেলিজেনিকে  পরাজিত করে ব্রোঞ্জ পদক লাভ করেন এবং ঐ বছরই তিনি ওয়ার্ল্ড জুনিয়ার র্যাংকিং-এ প্রথম হন।উইম্বলডন জুনিয়ার খেতাব জয় তাকে আন্তর্জাতিক পরিচিতি প্রদান করে।দ্রুত তিনি জুনিয়ার বিশ্বতালিকার শীর্ষস্থান লাভ করেন।লিয়েন্ডার একমাত্র ভারতীয় খেলোয়াড় যিনি ২০১৬ রিও অলিম্পিক নিয়ে মোট ৭ বার অলিম্পিকে অংশগ্রহন করেছেন।২০১৩ সালে সবচাইতে বয়স্ক খেলোয়াড় হিসাবে ৪০ বছর বয়সে রেডেক স্টেপানেকের সঙ্গে জুটিবেঁধে ইউ এস ওপেন গ্র্যান্ডস্লাম খেতাব জেতেন।অনুমান করা যায়, যে একজন খেলোয়াড়ের শারীরিক সক্ষমতা কোন পর্যায়ের থাকলে তবেই ৪০ বছর বয়সে ইউ এস ওপেন নামক গ্র্যান্ডস্লাম খেতাব জেতা সম্ভব ! মহেশ ভুপতির সাথে জুটি বেঁধে বিশ্ব ডাবলস টেনিসে দীর্ঘসময় প্রথম স্থানটি ধরে রাখেন এবং ১৯৯৯ সালে তারা সবকটি লড়ায়ের ফাইনালে যান।

আজ অবধি লিয়েন্ডার মোট খেতাব জিতেছেন-ডাবলস খেতাব ৫৫টি,তার মধ্যে গ্র্যান্ডস্লাম ৮টি।অস্ট্রেলিয়ান ওপেন ২০১২,ফরাসি ওপেন-১৯৯৯,২০০১ ও ২০০৯।উইম্বলডন-১৯৯৯।ইউ এস ওপেন-২০০৬,২০০৯,২০১৩।

মিক্স ডাবলস-খেতাব ১০টি।গ্রান্ড স্লাম-১০টি।অস্ট্রেলিয়ান অপেন-২০০৩,২০১০ ও ২০১৫।ফরাসি ওপেন-২০১৬।উইম্বলডন-১৯৯৯,২০০৩,২০১০ ও ২০১৫।ইউ এস ওপেন-২০০৮ ও ২০১৫।ভারতের অন্যতম অনন্য ক্রীড়াব্যক্তিত্ব হিসাবে তাকে ১৯৯৬-১৯৯৭ সালে দেশের সর্বসেরা ক্রীড়া সম্মান রাজীব গান্ধী খেল রত্ন পুরস্কার প্রদান করা হয়।২০০১ লিয়েন্ডারকে পদ্মশ্রী সন্মানে ভূষিত করা হয়।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *