বেলা ১২.০৭,অরুন অস্ত গেল- দেবাশীষ পাইন

26

ভারতের প্রাক্তন অর্থমন্ত্রী ও ভারতীয় জনতা পার্টির নেতা অরুণ জেটলি শনিবার বেলা ১২.০৭ মিনিটে দিল্লির অল ইন্ডিয়া ইনস্টিটিউট অব মেডিক্যাল সাইন্সে মাত্র ৬৬ বছর বয়সে মারা গেলেন।পেছনে রেখে গেলেন নোটবন্ধিকে কেন্দ্র করে সফলরা ও বিফলতার একরাশ অসমাপ্ত বিতর্ক বিবাদ।

গত ৯ আগস্ট থেকে ওই হাসপাতালে একদল বিশিষ্ট  চিকিৎসদের অধীনে চিকিৎসা চলছিল। কিন্তু সব চেষ্টা বিফল করে ৬৬ টিতেই জীবনদ্বীপ নিভে গেল। ২০১৪ সালে ডায়াবেটিসের কারণে ওজন কমানোর জন্য ব্যারিয়াট্রিক সার্জারি করতে বাধ্য হন। ২০১৮ সালে তার কিডনি প্রতিস্থাপন হয়।অসুস্থতার কারণে ২০১৯ সালের অন্তর্বর্তী বাজেটও পেশ করতে অপারগ ছিলেন। বাজেট পেশ করেন তার    সহকর্মী পিযুশ গোয়েল।

ভারতের প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী অটল বিহারী বাজপেয়ীর মন্ত্রীসভাতে কাজ করেছেন।২০০৯-২০১৪ সাল অবধি রাজ্যসভায় বিজেপি দলের পক্ষে বিরোধী দলনেতা ছিলেন।২০১৪ সালে নরেন্দ্র মোদির নেতৃত্বাধীন প্রথম সরকারে অর্থ মন্ত্রক ছাড়াও অন্য অনেক মন্ত্রকের দায়িত্ব সামলেছিলেন।

দেশে যখন জরুরি অবস্থা জারি হয় তখন তিনি দুরন্ত ছাত্র নেতা।ওই সময় অন্য অনেকের সঙ্গে কারারুদ্ধ হয়েছিলেন অরুণ জেটলি।

পেশায় আইনজীবী অরুণ জেটলি কারাগার থেকে মুক্তি পেয়ে জন সংঘের সদস্য হিসেবে সক্রিয় রাজনীতিতে যোগদান করেন।

তুখোড় রাজনীতিবিদ এবং সুবক্তা এই রাজনীতিবিদের মৃত্যুতে সারা ভারতে শোকের ছায়া নেমে এসেছে। রোগযন্ত্রনা লোক থেকে শান্তিলোকের যাত্রা সফল হোক। ওনার বিদেহী আত্মার শান্তি কামনা করি।

দেবাশীষ পাইন

দেবাশীষ পাইন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *