আজ মাদার তেরেসার জন্মদিন-যার পুন্যস্পর্শে ধন্য হয়েছিল,এ–শহর কলকাতা

kobid_1377491040_12-13জন্মসূত্রে আলবেনিয়ান কিন্তু মানবসেবার পুন্যার্জনের সবটুকু বিলিয়ে দিয়ে গেছেন ভারতে, বিশেষ করে কলকাতায়।তার মহিমার পুন্যস্পর্শ পাওয়ার জন্য সমগ্র পৃথিবীর মানুষ ভেঙে পড়ত কলকাতায়। বিশ্ব ‘মা’ তুমি আমাদের ধন্য করেছ। সারাবিশ্বের দুস্থ মানুষের ভরসার স্থল ও মমতাময়ী মায়ের প্রতিমুর্তি ছিলেন যে মহীয়সী নারী তিনিই মাদার তেরেসা।সুদীর্ঘ ৪৫ বছর ধরে তিনি দরিদ্র, অসুস্থ, অনাথ ও মৃত্যুপথযাত্রী মানুষের সেবা করেছেন। সেই সঙ্গে মিশনারিজ অফ চ্যারিটির বিকাশ ও উন্নয়নেও অক্লান্ত পরিশ্রম করেছেন। দুঃখী, দুস্থ আর্ত জর্জরিত মানুষকে তিনি একান্ত মায়ের স্নেহ-মমতায় বুকে তুলে নিতেন। এভাবেই তিনি আত্মনিয়োগ করেন মানুষ ও মানবতার সেবায়। মাত্র পাঁচ টাকা মূলধন নিয়ে তিনি যে মিশনারীজ অব চ্যারিটি প্রতিষ্ঠানটি গড়ে তুলেছিলেন, তা আজ সারা বিশ্বে সম্প্রসারিত হয়েছে শত শাখা-প্রশাখায়। মানবতার সেবার স্বীকৃতি স্বরুপ শান্তির জন্য মাদার তেরেসাকে ১৯৭৯ সনে নোবেল পুরষ্কার দেওয়া হয়। নোবেল পুরষ্কারের ১৫ লক্ষ টাকা এবং অন্যান্য পুরস্কারের প্রায় এক কোটি টাকা সবই তিনি দান করেন মানবতার সেবায়। এই মহীয়সী নারী বৃদ্ধ বয়সেও সেবাব্রতের কাজে পৃথিবীর বিভিন্ন দেশে অক্লান্তভাবে ঘুরে বেড়িয়েছেন। ১৯১০ সালে ২৬সে আগস্ট আলবেনিয়ায় জন্মগ্রহণ করেন ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *