Ajker Ranna..ilish polau..

P1250520ইলিশ পোলাউঃ

ইলিশ পোলাউ, আমাদের দেশের  নামকরা খাবার। অবিভক্ত বাংলায় এই পদটি বিশেষ অতিথি এলে বা পালা- পার্বণে বিশেষ করে রন্ধন তালিকায় থাকত। আজ বাংলা বিভক্ত হলেও রান্নার পদটি একই আছে। আমাদের রান্নাঘরে আজকাল অনেক বিদেশী রান্না ঢুকে পড়েছে, এটার মধ্যে আমি খারাপ কিছু দেখি না বরং আমরা রান্নায় সম্পদশালি হচ্ছি।এই খাবারটা আমরা সারা দুনিয়ায় ছড়িয়ে দিতে পারি। ইলিশ মাছ,চাল, মশলা সব উপকরণই দেশজ।

উপকরনঃ

– ইলিশ মাছ ৬ টুকরো (বড় ইলিশে স্বাদ খুলবে )

– পোলাউ চাল, ৭৫০ গ্রাম

(বাটিতে নিচের মশলা গুলো মিশিয়ে নিন)

– পেঁয়াজ বাটা, ২ টেবিল চামচ

– আদা বাটা, দেড় টেবিল চামচ

– রসুন বাটা, ২ চা চামচ

– বাদাম বাটা, ২ টেবিল চামচ

– জিরে গুড়ো, হাফ চা চামচ

– জয়ত্রি বাটা, হাফ চা চামচের কম

– গোল মরিচ বাটা, ১ চা চামচ

– চিনি, হাফ চা চামচ

– টক দই, এক কাপ( পরিমান জল দিয়ে ফেটিয়ে নিতে হবে)

– বেরেস্তা, হাফ কাপ

– কয়েকটা কাঁচা লঙ্কা

অন্যান্য

– লবন (পরিমান মত, প্রথমে কম, পরে স্বাদ অনুযায়ী)

– তেল (দুই ধাপে এক কাপের কম বা সামান্য বেশী)

— জল পরিমান মতো।

P1250517

প্রনালীঃ

–ইলিশ মাছের টুকরো ভাল করে পরিস্কার করে সামান্য হলুদ ও এক চিমটি লবন মাখিয়ে রাখুন।

 

— মশলা গুলো (উপরে পরিমান দেয়া হয়েছে) একটা বাটিতে মিশিয়ে নিন

— বেরেস্তা ভেঁজে রাখুন।

— মূল রান্নাঃ

— যে কড়াইতে বেরেস্তা ভাজবেন, সেই গরম তেলেই মশলা গুলো দিয়ে দিন এবং ভাল করে ভাঁজতে থাকুন, হাফ চামচ নুন দিয়ে নিন।

— মশলা ভাঁজা হয়ে গেলে তাতে ইলিশ মাছের টুকরা গুলো দিয়ে দিন। কয়েকটা কাঁচা লঙ্কা দিতে ভুলবেন না।

— মাছ এপিঠ- ওপিঠ করে দিন। তবে মাঝারি আঁচে।

— এবার টক দই দিয়ে দিন।

— ঢাকনা দিয়ে মিনিট ৬/৭ মাধ্যম আঁচে রাখুন।

— একটু মাখা মাখা হলে,এবার ইলিশ মাছ গুলো সাবধানে তুলে রাখুন, মাছ যেন ভেঙ্গে না যায়।

— মাছ তুলে নেয়ার পর যে ঝোল থাকবে তাতে ধুয়ে রাখা পোলাউএর চাল দিয়ে দিন।ভাল করে মিশিয়ে নিন।

— এবার পরিমান মত জল দিন। জলের পরিমাণটা এমন হবে যে, চালের উপরে এক ইঞ্চি থাকবে। এই পর্যায়ে ফাইন্যাল নুন চেখে দেখতে হবে।

— মাঝারি আঁচে ঢেকে রাখুন।

— এবার তুলে রাখা মাছ গুলো দিয়ে দিন।

— বেরেস্তা দিন।

— চাল গুলো দিয়ে মাছ ঢেকে দিন।

— উনুনে চাটু বসিয়ে তার ওপর যে পাত্রে রান্না করছেন সেটা বসিয়ে মাধ্যম আঁচে মিনিট ২০ রাখুন। মাঝে মাঝে দেখুন, হল কি না, দুই একবার উল্টেও দিতে পারেন। যদি জল কম হয়ে যায় এবং দেখেন চাল তেমন নরম হয় নি তখন আরো জল ছিটিয়ে দিতে পারেন এবং আবার ঢাকনা দিয়ে রাখতে হবে।

রান্না হয়ে গেছে বুঝলে বেঁচে থাকা কিছু বেরেস্তা উপরে ছিটিয়ে দিন। ব্যাস এবার আপনি পরিবেশন করতে পারেন, মনে রাখবেন  এই পোলাউ গরম গরম খেয়ে মজা।

P1250522

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *