বর্ষায় বেড়ানোর ঠিকানা…’চাঁদবালি’

CHANDBALI

শহরে বর্ষায় হাঁটু অবধি জমা জল, প্যাচপ্যাচে কাদা, এক পশলা বৃষ্টিতেই রাস্তায় যানজট, চারিদিকে নোংরায় ভর্তি,এককথায় নরক যন্ত্রণা । এই সব থেকে কয়েকদিনের জন্য মুক্তি পেতে বর্ষায় একমাত্র ঠিকানা হতে পারে চাঁদ বালি।

40_big

ওড়িশায় ভদ্রকে নিরিবিলি পরিবেশে পবিত্র বৈতরণী নদীর তীরে ভ্রমণের ঠিকানা চাঁদবালি।ভদ্রক থেকে মাত্র ৫০ কিলোমিটার অত্যন্ত জনপ্রিয় ভ্রমণের স্থান চাঁদবালি।ব্রাহ্মণী, বৈতরণী ও ধামারা নদীর পলিমাটি জমে তৈরি হয়েছে চাঁদবালির আরেক বিশেষ আকর্ষণ ভিতরকনিকা অভয়ারণ্য। এখানে বিরল প্রজাতির একাধিক পশু- পাখী দেখতে পাবেন। প্রায় ৬৩ প্রজাতির ম্যানগ্রোভ বা সুন্দরী গাছ দেখতে পাওয়া যায়।

Group-Outing-chandbali1brown-winged-kingfisher64906679

বর্ষাকালে ঘুরতে  অন্যতম পর্যটনের ঠিকানা ভিতরকণিকা। দায়িত্ব নিয়ে সুপারিশ করছি দেরি না করে বেরিয়ে পড়ুন চাঁদবালির দিকে। এখানে দেখার জন্য রয়েছে শিব মন্দির, পদ্ম পুকুর। সমুদ্র সৈকতও খুব বেশি দূর নয়। কাছেই রয়েছে একাকুলা, বারুনেই।

57305eb11f777

কীভাবে যাবেন : চাঁদবালি যাওয়ার সবচেয়ে কাছের রেল স্টেশন ভদ্রক। ট্রেনে করে পৌঁছে যেতে পারবেন সেখানে।

কোথায় থাকবেন : সেখানে থাকার জন্য রয়েছে একাধিক আবাসন। অন্যান্য নিবাস, চাঁদবালি। তাছাড়া দাঙ্গমাল, একাকুলা, গুপি এবং হাবিলখাটিতে রয়েছে ফরেস্ট লজ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *