বর্ষায় চলুন জিম করবেট পার্ক…

tiger-jim-national-park-tourজঙ্গল ঘুরতে যারা ভালোবাসেন তারা খুব একটা অন্য স্থানে ঘুরতে যেতে চান না। একবার জঙ্গল ঘোরার নেশার কবলে পড়লে নিস্তার নেই। পরিবার বা প্রিয়জনদের চাপে অন্যত্র গেলেও মন পড়ে থাকে সেই জঙ্গলে। বন্যপ্রাণী প্রেম, জঙ্গলের নিস্তব্ধতা, বুকভোরে তাজা নিশ্বাস, অজানা পোকা মাকড়ের ঐক্যতান সব মিলিয়ে এক অমোঘ আকর্ষণ।

Sambar_Deer_in_Jim_Corbet_National_Park

বর্ষায় জঙ্গল ভ্রমণ হতে পারে আদর্শ গন্তব্য। একদম পর্যটকদের ভিড় থাকে না সেই কারণে বন্যপ্রাণী দেখতে পাওয়ার সুযোগ বেশী, এছাড়াও বর্ষায় জঙ্গলকে অন্য রূপে দেখতে পাওয়া যায়। একটা গুজব খুব প্রচলিত আছে যে বর্ষায় জঙ্গল বন্ধ থাকে জিম, হ্যা-থাকে কিন্তু করবেট পার্ক খোলা থাকে। ধিকালা, বিজরানি, দুর্গাদেবী আর ঝির্না – সারা বছরই খোলা থাকে। আর কোশী নদীতে র‍্যাফটিং তো বর্ষাতেই সম্ভব। বছরের বাকি সময়ে তো জলই থাকে না। প্রতি দিন সকালে আর সন্ধ্যায় তিন ঘণ্টার জিপ সাফারির আয়োজন করা হয়। বর্ষায় করবেটে হাতি সাফারিরও ব্যবস্থা করা হয়।হরেক বন্যপ্রাণী ও প্রচুর পাখী দেখার সুযোগ বর্ষাতেই।

images (1)

কী ভাবে যাবেনঃ

দিল্লি থেকে সরাসরি ট্রেনে মোরাদাবাদ। মোরাদাবাদ থেকে দু’ ঘণ্টার ট্রেনযাত্রায় রামনগর। মোরাদাবাদ-রামনগর বাস চলে। গাড়ি ভাড়াও পাওয়া যায়। দিল্লি থেকেও সরাসরি রামনগরের বাস আছে। বিমানে দিল্লি গিয়ে সেখান থেকে বাসে বা গাড়িতে যাওয়া যায় রামনগর। দিল্লি থেকে গাড়িতে ৬ ঘণ্টা। রামনগরে ব্যাঘ্র প্রকল্পের ফিল্ড ডিরেক্টরের অফিস থেকে সাফারি বুক করতে হয়। যোগাযোগ- (০৫৯৪৭)২৫১৪৮৯।

images

কোথায় থাকবেন:

কুমায়ন মণ্ডল বিকাশ নিগমের টুরিস্ট রেস্ট হাউস। যোগাযোগ – ৮৬৫০০০২৫২২। অনলাইন বুকিং – www.kmvn.gov.in।এ ছাড়া রামনগরে বেসরকারি হোটেল, রিসোর্ট আছে।

jim-corbett-tiger-national-park

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *