—– সাপ্তাহিক রাশিফল —–

unnamedমেষঃ নতুন সম্পত্তি কেনার ব্যাপারে সতর্ক থাকুন। প্রতারকের পাল্লায় পড়বার সম্ভাবনা আছে। ভাই- বোনেদের সঙ্গে নিরাপদ দূরত্ব বজায় রেখে সম্পর্ক রক্ষা করুন। পিতার স্বাস্থ্য নিয়ে দুঃশ্চিন্তা থাকবে। ধৈর্য সহকারে কাজকর্মে লেগে থাকুন।

বৃষঃ ছোট বয়সের কোনও ঘটনার পুনরাবৃত্তি হতে দেবেন না। বয়স্কদের চিকিৎসার জন্য টানাপোড়েনের সম্ভাবনা। আয়ের মাত্রা বেড়ে শখ শৌখিনতা পুরন করার সুযোগ আসবে। কিন্তু খরছে নিয়ন্ত্রন রক্ষা না করলে সমস্যা হবে। অন্যের দোষ দেখেও চুপ থাকার চেষ্টা করুন।

মিথুনঃ কর্ম উপলক্ষে বাইরে যাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। আয়ের মাত্রা বাড়লেও মনে হবে সংসারে সংকুলান হচ্ছে না। স্বামী- স্ত্রীর মধ্যে স্বাস্থ্য সমস্যা নিয়ে খিটিমিটি লাগতে পারে। যানবাহনে চলাফেরায় বিশেষ সতর্কতা অবলম্বন করুন। যারা ৪২ বছরের অধিক তাদের জন্য সময়টা বাধাবহুল।

কর্কটঃ প্রতিযোগিতামুলক ক্ষেত্রে এই সপ্তাহে আপনাকে হারানো কঠিন। গৃহ ও ভৃত্য সংক্রান্ত কোন সমস্যা নেই। নতুন ব্যবসা শুরু হওয়ার ইঙ্গিত পাবেন। উচ্চশিক্ষার ক্ষেত্রে সময়টা অনুকূল। বন্ধুদের দ্বারা কোনও কাজে আপনি লাভবান হবেন না।

সিংহঃ কতৃপক্ষের কাছে নিজের দাবি আদায়ে তৎপর থাকুন। শুভ পরিবর্তনে অনিশ্চয়তা কেটে যেতে পারে। যে কোনও কাজই করুন তা তুচ্ছ মনে করে করবেন না। অর্থনৈতিক ক্ষেত্র শুভ। চোখের সমস্যা দেখা দিলে অবহেলা করবেন না।

কন্যাঃ এ সপ্তাহে ঘটনাগুলো দ্রুত ঘটতে থাকায় ভালোমন্দ ভাববার সময় পাবেন না। কোনও চুক্তিপত্রে সই করার আগে পরিস্থিতি যাচাই করে নেবেন। কর্মক্ষেত্রে আপনার প্রচেষ্টা খ্যাতি এনে দেবে। আর্থিক ক্ষেত্র মঙ্গল।

তুলাঃ দ্রুত কাজকর্ম করতে চাইছেন কিন্তু কোন না কোনও বাধার কারনে করতে পারবেন না। কোনও প্রিয়জনের আগমনে পরিবারের খুসির হাওয়া বইবে। সন্তানের সাফল্যে আনন্দ পাবেন। খরছের পরিমান বেড়েই চলবে।

বৃশ্চিকঃ সপ্তাহের শেষে কাছেপিঠে ভ্রমনের জন্য পরিকল্পনা করতে পারেন। খাওয়াদাওয়ার ব্যাপারে সতর্ক না হলে পেটের সমস্যা কাহিল করে দিতে পারে। দৈনন্দিন কাজ যেমন চলছে তেমন ভাবেই চলতে দিন। আর্থিক সমস্যায় পড়তে পারেন। পরিবারে খুচখাচ মনোমালিন্য থাকবে।

ধনুঃ আয়ব্যায়ের সমতা রক্ষা করে চলার চেষ্টা করুন। সামাজিক সহায়তা পাওয়া আপনার পক্ষে ভাগ্যপদ। আত্মীয়স্বজন কে কি ভাবল বা করলো তা নিয়ে কোনও চর্চায় যাবেন না। ব্যক্তিগত কাজের ক্ষেত্রে সন্মান অক্ষুণ্ণ থাকবে। সন্তানের কোনও সমস্যা হবে না।

মকরঃ বয়স্ক মানুষের শিশুসুলভ আচরন মানিয়ে নিয়ে চলার চেষ্টা করুন। বিদ্যার্থীরা নিজেদের উগ্র মেজাজকে নিয়ন্ত্রনে রাখতে পারলে ভালো হয়। অর্থযোগ ও সন্তানভাব অনুকূল। পরিবারে কারোর মানসিক সমস্যা দেখা দিলে মনোরোগ চিকিৎসকের পরামর্শ নিন।

কুম্ভঃ অর্থনৈতিক ক্ষেত্রে আপনাকে সাহায্য করবে এমন কাউকে পাবেন না। গুরুত্বপূর্ণ যোগাযোগের প্রভাবে যে অর্থ প্রয়োজন ছিল তা আর লাগবে না। শরীর ও মন যদি সুস্থ থাকে তাহলে যথেষ্ট ভাববেন।বিপরীত লিঙ্গের সঙ্গে আবেগের সম্পর্ক গড়ার আগে ভাবুন।

মীনঃ অপ্রয়োজনীয় বাক্য ব্যবহার করলে হওয়া কাজও আটকে যেতে পারে। পূর্বে কোনও শুভানুধ্যায়ীর সঙ্গে যোগাযোগ হয়েছিল এমন ব্যক্তির মতামত নিয়ে চলুন। ভাতৃস্থানীয় ব্যক্তির অতি নমনীয় আচরন চিন্তার কারন হতে পারে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *