পোশাকের সঙ্গে মানানসই ঘড়ি চাই-ই-চাই

trendy-stylish-fashionalble-fashion-golden-formal-dress-eatch-wathces-for-womenঘড়ির গুরুত্ব ফ্যাশনের অংশ হিসেবে অপরিসীম।সালোয়ার-কামিজ থেকে শাড়ি বা ওয়েস্টার্ন যেকোনো পোশাকের সাথে ঘড়ি মানানসই হতেই হবে নাহলে ফ্যাসান অসম্পূর্ণ থেকে যাবে।এছাড়াও ঘড়ির একটা অন্য দিকও আঁচে সেটা হল,ঘড়ি আপনার রুচির পরিচয় বহন করে।

অফিস পরিবেশের জন্য বেছে নিতে পারেন ছোট কিংবা মাঝারি ডায়ালের হাতঘড়ি।শাড়ি বা সালোয়ার-কামিজের সঙ্গে দিব্যি সহজেই মানিয়ে যাবে এ ধরনের ঘড়ি।

পাশ্চাত্য ঘরানার পোশাকের সঙ্গে বড় ডায়াল ও চওড়া বেল্টের হাতঘড়ি।হালফ্যাশনের  বাজারে এখন মেয়েদের চওড়া বেল্টের এবং চিকন চেইনের হাতঘড়িই বেশি চোখে পড়ে।

ঘড়ির বেল্টের মধ্যেও রয়েছে নানা রঙের বেছে নিতে পারেন।নানা ধরনের বেল্ট পাওয়া যাচ্ছে যেমন-চামড়া, রাবার, রেক্সিন ও জিন্স।এ ছাড়া এখন বেল্টে বিভিন্ন ধরনের পাথর, ক্রিস্টাল বসানো হাতঘড়িও বাজারে পাওয়া যাচ্ছে।এগুলো শার্ট এর সঙ্গে দারুন মানাবে।নানা রঙের পাথর বসান ও ধাতুর কারুকাজ করা থাকে এসব ঘড়ির ডায়ালে। পোশাক এবং হাতের সঙ্গে মানানসই ডায়াল আপনার দর্শনটাই পাল্টে দিতে পারে!

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *