“ডান্সার রানা রেজ থেকে মিঠুন চক্রবর্তী”

 mithu-chakrbarty১৬ই জুন ২০১৮,৬৮ বছরে পড়লেন অভিনেতা মিঠুন চক্রবর্তী।সময়ের স্রোত আঁক কেটেছে নিশ্চয়,তবুও ৬৮ মনে হয় না। মহানায়ক বা মহাগুরু যে কোনও উপাধিতে ভূষিত করতে পারেন।সবটাই খাপ খায় ওনার সঙ্গে।বিগত বেশ কয়েকদিন ধরে বিভিন্ন ওয়েবে মিঠুনের অসুস্থতা নিয়ে খবর হচ্ছে।আমার আবেগের মিঠুন চক্রবর্তী অসুস্থ খবরটা মানতে কষ্ট হচ্ছিলো। কেউ জানে না বর্তমানে তিনি সুস্থ না অসুস্থ!! মুদ্রন, বৈদ্যুতিক কোনও মাধ্যমে শিরোনামে নেই। তাহলে কি তিনি আর শিরোনাম নন?

ডান্সার রানা রেজ থেকে মিঠুন চক্রবর্তী হয়ে ওঠা, পুরোটাই ফুটপাত থেকে রাজপ্রাসাদে যাওয়ার রুপকথা। অপমান, অবহেলা, অবজ্ঞার বিরুদ্ধে চোয়াল চাপা লড়াই করে উত্তরনের ইতিহাস।গৌরাঙ্গ চক্রবর্তীর হিরো হওয়া আজও আমবাঙালির কাছে দাম্ভিকতার অন্য নাম।  তবে কেন আজ ডিস্কো ড্যান্সের জনক স্বেচ্ছা বনবাস নিয়েছেন??

মুম্বইয়ের নিজের বাড়ির বাইরে ফুটপাথে দাঁড়িয়ে একবার ছেলেকে প্রশ্ন করেছিলেন, ‘‘বলতো, এখান থেকে আমাদের ওই বাড়িটায় যেতে কত সময় লাগবে?’’ ছেলে উত্তর দিইয়েছিল, ‘‘দৌড়ে তিন মিনিট। হেঁটে ছ’ মিনিট।’’ মুচকি হেসে মহানায়ক বলেছিল ‘‘এখান থেকে ওই বাড়িটায় পৌঁছতে আমার লেগেছিল ৩৪ বছর!’’

বুকভরা অভিমান নিয়ে বাংলা ছেড়েছেন মহানায়ক। কিন্তু এই সুপারটার কত সুপারস্টারের প্রথম দিনের স্বপ্ন। শাহরুখ খান থেকে হৃতিক রোশন, এমনকী ইরফান খানও বাদ নেই। মিঠুনকে দেখেই তাঁদের স্বপ্নের পথ চলা শুরু।

মিঠুন তখন বাংলা এক জনপ্রিয় চ্যানেলের এক নাচের রিয়্যালিটি শো-য়ের সঞ্চালনা করছেন। একই অনুষ্ঠানে অতিথি হয়ে এসেছেন শাহরুখ খান। মঞ্চে আবির্ভাবেই শাহরুখ খান প্রায় দৌড়ে গেলেন মিঠুনদার কাছে। তাঁর স্বপ্নের ডিস্কো ডান্সার। যাঁকে রুপোলি পর্দায় দেখে তাঁর অভিযান শুরু। শাহরুখ হাঁটু গেড়ে বসলেন মিঠুনের সামনে।এদিন সাক্ষী থেকেছিল অগনিত ‘বাঙালি’।

দাদা তুমি ভালো থেকো… জন্মদিনে অনেক অনেক ভালোবাসা।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *