উচ্চমাধ্যমিকের পর রাশিবিজ্ঞান নিয়ে পড়ে কেরিয়ার গড়ুন।

feb23image1-300x188কেরিয়ার ডেস্কঃ  উচ্চমাধ্যমিকের পরই ছেলেমেয়েদের কেরিয়ার গড়ার উপযুক্ত সময়।কেউ যেতে চান সাধারন শাখায় আবার কেউ যেতে চান বৃত্তিমূলক শাখায়।৬০% ছেলেমেয়েরা সাধারন শাখায় পড়াশোনা করে কেরিয়ার গড়তে চান।আমরা বলছি ছেলেমেয়েরা রাশিবিজ্ঞান নিয়ে পড়াশোনা করে উজ্জ্বল কেরিয়ার গড়ুন।

রাশিবিজ্ঞান নিয়ে পড়াশোনা করলে কেন্দ্রীয় সরকারের সমীক্ষা অনুসারে, ভারতে প্রতিবছর অন্তত ৩০,০০০ স্টাটিস্টিশিয়ান দরকার।চাহিদা অনুযায়ী জোগান খুব কম ফলে হাড্ডাহাড্ডি প্রতিযোগিতাও কম। রাশিবিজ্ঞানীদের প্রধান কাজ হল বিভিন্ন বিষয়ে তথ্য সংগ্রহ করে সেই তথ্যকে বিশ্লেষণ করে উপস্থাপন করা।এই তথ্য দেশের অর্থনৈতিক উন্নয়ন ও পরিকল্পনা নীতি তৈরিতে সাহায্য করে।যেমন-যোজনা,গনিত,অর্থনীতি,হিসাবশাস্ত্র ও অডিটিং, বিমাক্ষেত্র,সমাজবিদ্যা,ব্যাঙ্কিং,জীববিদ্যা ও চিকিৎসাবিজ্ঞান,মনোবিজ্ঞান,শিক্ষাবিজ্ঞান,ভাষাতত্ত্ব,জনস্বাস্থ্য, ক্রীড়াবিজ্ঞান,কম্পুটার সায়েন্স,অ্যাগ্রিকালচারাল সায়েন্স প্রভৃতি।

রাশিবিজ্ঞানের দুটি শাখাঃ ডেসক্রিপটিভ স্ট্যাটিস্টিক্সঃ এই ক্ষেত্রে তথ্যের ব্যবহার হয় গ্রাফস,নিউমেরিক্যাল ক্যালকুলেসন, টেবিলস এর মাধ্যমে।

ইনফারেনশিয়াল স্ট্যাটিস্টিক্সঃ এই ক্ষেত্রে তথ্যের ব্যবহার করা হয় র‍্যামডম বা নমুনা সংগ্রহের জন্য।

কাজের ক্ষেত্র ও সুযোগঃ ভারত ও বিদেশে রাশিবিজ্ঞানীদের চাহিদা প্রচুর।কৃষিক্ষেত্র,তথ্য-প্রযুক্তি,স্বাস্থ্যবিজ্ঞান, আদমসুমারি,অটোমোবাইল শিল্প,ওষুধশিল্প,জৈবপ্রযুক্তি,বায়োইনফরমেটিক্স,জেনেটিক্স,প্রানিসম্পদ ক্ষেত্র,বনদফতর,অর্থমন্ত্রক,বানিজ্যমন্ত্রক,শিল্পমন্ত্রক,গ্রামোন্নয়ন ক্ষেত্র,লোকআয়োগ,কম্পুটার সফটওয়্যার সংস্থা,প্রানি জনগননা ক্ষেত্র,শিক্ষা ও গবেষণা ক্ষেত্র।

কোর্স ও যোগ্যতাঃ স্ট্যাটিস্টিক্স বিষয়ে সার্টিফিকেট,ডিপ্লোমা, ডিগ্রি ও পোস্ট গ্র্যাজুয়েট কোর্স পড়ান হয়।কেউ চাইলে ডক্টরেট(পি এইচ ডি)পোস্ট ডক্টরেট করতে পারেন।অঙ্ক, রাশিবিজ্ঞান বা অর্থনীতি ও ইংরাজি নিয়ে উচ্চমাধ্যমিক বা সমতুল পাস করলে রাশিবিজ্ঞানে অনার্স নিয়ে ডিগ্রি কোর্সে ভর্তি হতে পারেন।নামী কলেজের প্রবেশিকা পরীক্ষা অথবা উচ্চমাধ্যমিকে প্রাপ্ত নম্বরের ভিত্তিতে ভর্তি নেওয়া হয়।

ডিগ্রি কোর্স পড়ান হয়ঃ আশুতোষ কলেজ,মৌলানা আজাদ কলেজ,সেন্ট জেভিয়ারস কলেজ,লেডি ব্রেবর্ণ কলেজ, রামকৃষ্ণ মিশন কলেজ,সুরেন্দ্রনাথ কলেজ,বেথুন কলেজ,লরেটো কলেজ,বাসন্তীদেবী কলেজ,আচার্য জগদীশ চন্দ্র বসু কলেজ,গুরুদাস কলেজ, বিধাননগর কলেজ,প্রেসিডেন্সি কলেজ,রানিগঞ্জ টী ডি পি কলেজ,হলদিয়া গভর্নমেন্ট কলেজ।

পোস্ট গ্র্যাজুয়েট কোর্সঃ অনার্স নিয়ে ডিগ্রী কোর্স পাস করলে পোস্ট গ্র্যাজুয়েট কোর্সে ভর্তি হওয়া যায়।২ বছরের কোর্স।বিষয়গুলো-ইন্ডাস্ট্রিয়াল স্ট্যাটিস্টিক্স,এক্সপেরিমেন্টাল স্ট্যাটিস্টিক্স,ইকনমিক স্ট্যাটিস্টিক্স,অপারেশন রিসার্চ,বিজনেস স্ট্যাটিস্টিক্স,মাল্টিভেরিয়াড স্ট্যাটিস্টিক্স।পড়ান হয়ঃ কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়,প্রেসিডেন্সি বিশ্ববিদ্যালয়,বিদ্যাসাগর বিশ্ববিদ্যালয়,কল্যানি বিশ্ববিদ্যালয়,বর্ধমান বিশ্ববিদ্যালয়,বিশ্বভারতী বিশ্ববিদ্যালয় ও আলিয়া বিশ্ববিদ্যালয়। এছাড়া বাইরের কিছু বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ান হয়-দিল্লি বিশ্ববিদ্যালয়,এলাহাবাদ জেবিয়ারস,দেবী অহল্যা বিশ্ববিদ্যালয়, ইন্দোর স্কুল অফ স্ট্যাটিস্টিক্স,আলিগড় মুসলিম বিশ্ববিদ্যালয় ইত্যাদি।

 

 

 

 

 

 

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *