Aar Madan-Aroop ra noy..hok laxmi-Dibendu ra..DGTalks

50382697eee016e944141f197b1c20518933-grandeতৃনমূল ২০১১ সালে পশ্চিমবঙ্গে ক্ষমতায় পর মমতা ব্যানার্জি ক্রীড়ামন্ত্রী করেছিলেন মদন মিত্রকে। সারদা কেলেঙ্কারিতে সিবিয়াই-ইডির খপ্পরে পড়ে ‘মিত্র’মশাই বর্তমানে জেলবন্ধী।তবুও ‘পাদুকা’ রেখে দপ্তর শাসন প্রথা চালু ছিল।অবস্তা জটিল থেকে জটিলতর হওয়ার পর ‘মদন বাবু’ মন্ত্রিত্ব হারালেন।নয়া ক্রীড়ামন্ত্রী পেল বাংলা,’অরুপ বিশ্বাস’,যিনি ‘টলি পারায়’ দলের মুখ ও কান হয়েছিলেন,এখনও আছেন তবে যুবকল্যাণ-ক্রীড়ামন্ত্রক সামলাচ্ছে,আবাসন দপ্তর দেখার সঙ্গে সঙ্গে।এছাড়া বিধানসভা নির্বাচনে দার্জিলিং ও বর্ধমান এই দুটি জেলা দেখাশোনার দায়িত্ব ছিল ওনার,ছিল নিজের ভোটকেন্দ্র সামলানোর দায়, এবারেও তিনি জিতেছেন কিন্তু যে কেন্দ্র থেকে গতবার ২৭হাজার ভোটের ব্যবধানে জিতেছিলেন এবারে সেই কেন্দ্র থেকেই মাত্র ৯৮৯৬ ভোটের ব্যবধানে জিতলেন! আর রাজ্যের প্রাক্তন ক্রীড়ামন্ত্রী মশাই?যিনি জেলবন্ধী হয়ে নির্বাচনে লড়লেন এবং ৪১৯৮ হাজার ভোটে হারলেন।অর্থাৎ মাঠ-ময়দান কাঁপানো প্রাক্তন ও বর্তমান দুই মন্ত্রীর মসনদ গেল এবং টলমলে!

18metanup16

বাংলা তাহলে নতুন ক্রীড়ামন্ত্রীর মুখ পেতে পারে কি?মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি  দেখিয়ে দিয়েছেন তার মানসিক ও দৈহিক শক্তি এবং ফিটনেস,খেলা ভালবাসেন,এবারের বিধানসভায় একাই দলকে এগিয়ে নিয়ে গেলেন।বসিরহাট দক্ষিণ কেন্দ্রে শেষবার উপ নির্বাচনে প্রাক্তন জাতীয় ফুটবালার দিব্যেন্দু বিশ্বাস হেরেছিলেন, বিজেপির শমিক ভট্টাচাযয় র কাছে, পরাজয়কে জয়ে পরিবর্তন করার একরোখা মেজাজে ‘ম্যাডাম’ সেদিনই ঘোষণা করে দিয়েছিলেনঃ দিব্যেন্দু আবার লড়বে, ‘ম্যাডামের’ মর্যাদা রাখলেন দিব্যেন্দু, এবার জিতলেন ২৪ হাজার ৫৮টি ভোটে এবারেও বিজেপির প্রাথী’ ছিল শমিক বাবু।

Bhaicung Bhutia of Kingfisher East Bengal, India, in action during a final match of Asia Champion Club 2003 in Jakarta 26 July 2003. East Bengal defeated BEC Tero of Thailand 3-0. AFP PHOTO/ ADEK BERRY (Photo credit should read ADEK BERRY/AFP/Getty Images)

লক্ষ্মীরতন শুক্লা হাওড়ায় হাড্ডাহাড্ডি দিয়ে জয়ী হলেন,প্রাক্তন ভারতীয় ক্রিকেটার, অনেক অবহেলা-মানসিক নির্যাতন সয়েছেন,যোগ্যতা অনুযায়ী কদর পাননি। খেলাধূলা নামক একটা বড় মঞ্চ থেকে নিজেকে নামালেন একেবারে আনকোরা মঞ্চে।দেখলেন, এবং জয় করলেন। কলকাতা কর্পোরেশন এর তিন বারের কাউন্সিলর, কংগ্রেসর প্রতীকে লড়লেন সন্তোষ পাঠক(৩৪৯৪৮) এবং বিজেপির মমতারুপি(দলের ডাকনাম) রুপা গাঙ্গুলি(৩১৪১৬)’ডবল পেস’ অ্যাটাক সামলালেন। পোলিং হয়ে যাওয়ার পর হাওড়া তৃনমূলের কর্তারাও বেজায় টেনসনে ছিলেন,কিন্তু যার জায়গায় লক্ষ্মীরতন লড়লেন সেই অশোক ঘোষ, মন্ত্রী অরুপ রায়,হাওড়া কর্পোরেশনের বড় নাম গৌতম চৌধুরি সকলে খুশী, লক্ষ্মী ‘ঘরের ছেলে’ হয়ে মান রাখায়।এই জেলাতেই আমতায় তুষার শীল(৮৩৪৪২)লড়েছেন,ভারতশ্রী ‘দিদির’ প্রিয় যোগ বিশারদ মানুষটি কংগ্রেসের অসিত মিত্রকে বেশ চাপে ফেলে দিয়েছিলে বেশ কয়েক রাউন্ড(৮৭৬৮৬)কংগ্রেস এই কেন্দ্রে এবারও জিতল মাত্র ৪২৪৪ ভোটে।

images

এই হাওড়ায় গ্ল্যামার-কোসেন্ট দাদা’র প্রিয়(সৌরভ গাঙ্গুলি) বৈশালী ডালমিয়া প্রথমবার প্রতিদ্বন্দ্বিতা করলেও কেন্দ্রটি তৃনমূলের পক্ষে ধরে রাখলেন।বৈশালীর (৫২৭০২)সঙ্গে প্রধান লড়াই ছিল বামেদের সৌমেন্দ্র নাথ বেরার সাথে। বৈশালী নিজের প্রচারে বালি কেন্দ্রকে উন্নয়নের মডেল কেন্দ্র করার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন। ভোটের ফল প্রকাশ হয়ে গেছে, ইতিমধ্যে বৈশালী রাস্তা ঘাট ঠিক করা, কোথায় সোলার লাইট বসবে ইত্যাদি নিয়ে পরিকল্পনা শুরু করেছেন।সমাজ সেবিকা এবং দক্ষ ক্রীড়া সংগঠক পরিবারের কন্যা… জানেন কি ভাবে করতে হয়।

centre-candidate-tushar-mazumder-howrah-tuesday-sandip_0475a2b0-f0d8-11e5-8497-551663313045

দেশের প্রাক্তন জাতীয় ফুটবলার বাইচুং ভুটিয়া এবারও পারলেন না, হেরে গেলেন বামেদের প্রাক্তন মন্ত্রী অশোক বাবুর কাছে। দিব্যেন্দু- বাইচুং দুজনেই স্ট্রাইকার, দুজনেই পরাজয় দিয়ে রাজনৈতিক জীবন শুরু করেছিলেন,দিব্যেন্দু দ্বিতীয়টায় পারলেন কিন্তু বাইচুং পারলেন না।আরেক ফুটবলার রহিম নবি, জানপ্রান টক্কর দিয়েও মাত্র ১৩৯২ ভোটে হেরে গেলেন।

লখমি-দিব্যেন্দুরা যখন রাজ্জ্যে পারলেন,তেমনি বিজেপির কেন্দ্রিয় ক্রীড়ামন্ত্রী শরবানন্দ শানোয়ল আসামে বদল আনলেন। কেন্দ্রীয় ক্রীড়ামন্ত্রী হলেন আসামের মুখ্যমন্ত্রী। আমরাও দেখতে চাই আমাদের বাংলায় বিজয়ী কোনও ক্রীড়াবিদকে ক্রীড়ামন্ত্রী দেখতে পাবো, জানি না হবে কি না, যদিও জানি মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি যা চাইবেন তাই হবে কিন্তু হলে মন্দ হয় না।মানুষের চাহিদায় বাংলায় মা-মাটি- মানুষের সরকার, ময়দানের চাহিদায় হোক না, লক্ষ্মী বা দিব্যেন্দু।

safe_image (5)

DG Talks

দীপঙ্কর গুহ

সিনিয়র ক্রীড়া সাংবাদিক

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *