সংখ্যালঘুদের উপর নির্যাতনকারীদের অবিলম্বে গ্রেফতারের দাবি জানিয়েছেন, কংগ্রেস মহাসচিব-কাজী ছাব্বীর

kamala_debiবাংলাদেশে সংখ্যালঘুদের উপর হামলা নির্যাতন ও ধর্মীয় গুরুদের হত্যা করায় উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন বাংলাদেশ ন্যাশনাল কংগ্রেসের মহাসচিব সাবেক ছাত্রনেতা ছাবের আহাম্মদ (কাজী ছাব্বীর)। তিনি এক বিবৃতিতে বলেন ইসলামে জঙ্গিবাদের ঠাই নাই। ইসলাম কোন হত্যাকে অনুমোদন দেয় না, জোরপূর্বক ধর্মান্তরিত করাও ইসলামের বিধানে নেই। সন্ত্রাস জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে বাংলাদেশের স্বাধীনতাকামী সব মানুষই আজ ঐক্যবদ্ধ। বাংলাদেশ সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির দেশ। এ দেশে ধর্মবর্ণের মানুষের বসবাস করার অধিকার রয়েছে। যারা সত্যিকারের ইসলাম ধর্মের অনুসারী তারা কখনো অন্য ধর্মের অনুসারী ও তাদের ধর্মীয় অনুভুতিতে আঘাত করে না।

একজন মুসলিমের উচিত অন্য ধর্মের অনুসারীদের ধর্মীয় কাজ পালনে যতটুকু সম্ভব সহোযোগিতা করা। কংগ্রেস মহাসচিব আরো বলেন সংখ্যালুগু শব্দটি শুনতে ভাললাগে না। যাদের জন্ম বাংলাদেশে এবং বাংলাদেশের নাগরিকত্ব আছে আমরা সকলেই ভাই ভাই। আমরা বাংলাদেশী এটাই আমাদের সবার পরিচয়। হিন্দু, বৌদ্ধ ও খ্রিষ্টান সংখ্যালঘু নয়। তাদেরকে দেশের সম্পদ হিসেবে মনে করে সরকারের পাশাপাশি তাদের নিরাপত্তা দেয়ার দায়িত্ব সচেতন জনগনেরও রয়েছে। একশ্রেণীর ক্ষমতালোভী মৌলবাদ সংখ্যালঘু আর সংখ্যাগুরু বলে দেশে সাম্প্রদায়িক বিভাজন সৃষ্টি করে হিন্দু ও খিষ্ট্রান ভাইদের উপর নির্বিচারে হামলা চালিয়ে হত্যা করে দেশকে অস্থিতিশীল করে বিদেশীদের কাছে দেশকে তথাকথিত জঙ্গিবাদী রাষ্ট্র বানিয়ে সরকারকে বেকায়দায় ফেলে স্বীয়-স্বার্থ হাসিলের অপচেষ্টায় লিপ্ত আছে।

images

মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনাকে এ বিষয়ে সজাগ থাকার আহ্বান জানিয়ে অবিলম্বে ষড়যন্ত্রকারীদের তাদের চিহ্নিতপূর্বক গ্রেফতার করে আইনের আওতায় এনে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি নিশ্চিত করতে সরকারের প্রতি জোর দাবি জানিয়েছেন ন্যাশনাল কংগ্রেসের মহাসচিব। তিনি বলেন, স্বাধীনতা বিরোধী মৌলবাদীরা যেভাবে নির্বিচারে গুপ্ত হত্যায় মেতে উঠেছে এখনই এদের বিচারের আওতায় এনে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি নিশ্চিত না করলে আওয়ামী লীগ ও বাংলাদেশকে ভবিষ্যতে চরম খেসারত দিতে হবে। অপরদিকে এদেশের আপামর নিরীহ আমজনতার ভুগান্তি বাড়বে।

muhuri

তাই দেশের অস্তিত্ব রক্ষায় মুক্তিযোদ্ধের চেতনা বাস্তবায়নে দেশ আজ ঐক্যবদ্ধ। মহান স্বাধীনতা যুদ্ধের সময় হিন্দু-মুসলিম এ কথা না ভেবে, মানুষ হিসেবে গণ্য করে ভারত সর্বোচ্চ মানবিকতা দিয়ে আমাদের যেভাবে সহযোগিতা করেছে তা ভূলার মত নয়। হিন্দু মুসলিম ভেদাভেদ ভুলে গিয়ে সবাই ঐক্যবদ্ধ ভাবে দেশকে এগিয়ে নেওয়ার সময় এখন। জ্বালাও-পোড়াও, গুম খুন, অপহরণসহ যাবতীয় সন্ত্রাসী কার্মকা- পরিচালনাকারীদের এবং তাদের মদদদাতাদের চিহ্নিত করে আইনের আওতায় এনে অবিলম্বে শাস্তি নিশ্চিত না করিলে প্রয়োজনে জনগণকে সাথে নিয়ে রাজপথে আন্দোলনে নামার কথাও প্রকাশ করেন বাংলাদেশ ন্যাশনাল কংগ্রেস এর মহাসচিব সাবেক ছাত্র নেতা ছাবের আহাম্মদ (কাজী ছাব্বীর)।

13516741_1034647899915889_2487670142074105087_n

কাজী ছাব্বির

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *