“উপেক্ষিত ওপেনার”

GopalBose1মাত্র ৭১ এই থেমে গেল ওপেনারের ইনিংস। বাংলার ক্রিকেট ইতিহাসে এক উজ্জ্বল তারকার নাম গোপাল বসুর।

ইংল্যান্ডে ছেলের কাছে ছুটি কাটাতে গিয়ে গত শনিবার রাতে বুকে ব্যাথা অনুভব করায় লন্ডনে স্থানীয় হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়। কিডনিতে বিশেষ সমস্যা থাকায় ৭২ ঘন্টা লড়াই করার পর প্যাড গ্লাভস খুলে রাখেন। রবিবার ভোর রাতে প্রয়াত হন বাংলার প্রাক্তন এই ব্যাটসম্যান ৷
গোপাল বসু একটা সময় বাংলা

বাংলার ক্রিকেটকে সমৃদ্ধ করেছিলেন। ভারতীয় ক্রিকেটে দলে, যোগ্যতা থাকা সত্ত্বেও বাংলার খেলোয়াড়দের বঞ্চনার যে কাহিনি অতীতে বরাবর শোনা গিয়েছে তাঁর অন্যতম নিদর্শন গোপাল বসু। শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে বেসরকারি টেস্ট খেলেছেন- ব্যাস ঐ টুকুই, ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের দাবার ছকে বাইরেই থেকেছেন গোপাল বসু। তাই সরকারি টেস্ট ম্যাচ খেলা হয়নি।

১৯৭৪ সালে ইংল্যান্ডে ভারতীয় দলে স্থান পেয়েছিলেন কিন্তু রহস্যজনকভাবে তাঁকে খেলানো হয়নি। এরপর আর কোনওদিন জাতীয় দলে ডাক পাননি তিনি। প্রথম শ্রেণীর ক্রিকেটে ৭৮টি ম্যাচে মোট ৩৭৫৭ রান ৷ সর্বোচ্চ ১৭০ রান ৷ ১৭টি অর্ধশতরান ও ৮টি শতরান। এর পরেও আর কি বাকি থাকে নিজেকে প্রমান করার??

বঞ্চনার জ্বালাকে নিজের বুকে চেপে রেখে ক্রিকেটার গড়ায় মন প্রান ঢেলে দিয়েছিলেন। বাংলাকে অনেক সফল ক্রিকেটার উপহার দিয়েছেন। গোপাল বসুর প্রয়ানে বাংলা ক্রিকেট মহলে শোকের ছায়া নেমে এসেছে। একবিংস’র পক্ষ থেকে গোপাল বসুর পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানানোর সঙ্গে তার আত্মার শান্তি কামনা করছি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *