“মাউন্ট এভারেস্টে প্রথম মানুষরা”

Everest-2তেনজিং নোরগের আসল নাম নামগিয়াল ওয়াংদি। ১৯১৪ সালের মে মাসের শেষের দিকে নেপালের শোলোখুম্বু জেলার এক শেরপা পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন। রংবুক বৌদ্ধবিহারের প্রতিষ্ঠাতা ও প্রধান তার নাম পরিবর্তন করে তেনজিং নোরগে রাখেন।

১৯৩২ সালে ১৮ বছর বয়সে অর্থ উপার্জনের উদ্দেশ্যে তেনজিং ১২ জন সঙ্গীর সাথে দার্জিলিংয়ের উদ্দেশে রওনা হন। দার্জিলিংয়ে এসে নিকটবর্তী আলুবাড়িতে তেনজিং রোজগারের উদ্দেশ্যে দুধ বিক্রি শুরু করেন। ১৯৩৩সালে হিউ রাটলেজের নেতৃত্বে মাউন্ট এভারেস্ট অভিযানে মালবাহকের কাজ না পেয়ে তেনজিং বাড়ি ফিরে আসেন। তেনজিং আবার দার্জিলিং পালিয়ে আসেন এবং টংসুং বস্তিতে বসবাস শুরু করেন। ১৯৩৫ সালে দাওয়া ফুটি নামে এক শেরপা মেয়েকে বিবাহ করেন এবং ঐ বছরই এরিক শিপটনের নেতৃত্বে মাউন্ট এভারেস্ট অভিযানে যান। তেনজিং নোরগে এবং এডমন্ড হিলারি ১৯৫৩ সালের ২৯ মে যৌথভাবে পৃথিবীর সর্বোচ্চ শৃঙ্গ মাউন্ট এভারেস্ট জয় করেন।

২৯ মে তারা সকাল ১১টা ৩০ মিনিটে মাউন্ট এভারেস্ট শৃঙ্গ জয় করেন। পর্বতশৃঙ্গে হিলারি তেনজিংয়ের আলোকচিত্র তোলেন। এই আলোকচিত্রে তেনজিংকে তার বরফ-কুঠার তুলে ধরে থাকতে দেখা যায়। হিলারি হান্ট নাইট উপাধিতে ভূষিত হন এবং তেনজিংকে জর্জ পদক প্রদান করা হয়। ১৯৫৩সালে ২৯সে মে তেনজিং নোরগে আর এডমন্ড হিলারির এভারেস্ট জয় নিয়ে বিতর্ক আছে। তেনজিং নোরগে আর এডমন্ড হিলারি কি প্রথম না দ্বিতীয়?

অভিযাত্রী এবং পর্বতারোহী মহলের একটা বড় অংশের তাই ধারণা জর্জ ম্যালোরি নামে এক ইংরেজ পর্বতারোহী তেনজিং-হিলারির ২৯ বছর আগে এভারেস্ট জয় করেছিলেন। জর্জ ম্যালোরি এবং তার সঙ্গী স্যান্ডি আরভাইন ১৯২৪ সালের ৮ জুন এভারেস্ট অভিযান শুরু করেন। কিন্তু শেষ পর্যন্ত চূড়ায় পৌঁছতে পারেননি। এই অভিযানের ৭৫ বছর পর ১৯৯৯ সালে ম্যালোরির দেহ পাওয়া যায় এভারেস্টের উত্তরদিকে।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *