স্বনামধন্য বাঙালি লেখিকা লীলা মজুমদারের আজ জন্মদিন।

imageবাংলা সাহিত্যে স্বনামধন্য বাঙালি লেখিকা লীলা মজুমদার ১৯০৮ সালের ২৬ ফেব্রুয়ারি কলকাতার রায় পরিবারের গড়পাড় রোডের বাড়িতে জন্মগ্রহণ করেন।  শিশুসাহিত্যিক হিসেবেই তার ব্যাপক পরিচিতি। বাল্যজীবন কেটেছে শিলঙে। কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইংরেজি পরীক্ষায় তিনি ইংরেজিতে সর্বোচ্চ নম্বর অর্জন করেন। তিনি যেমন অনেক বাংলা গল্প, প্রবন্ধ ও উপন্যাসের রচনা করেছেন একই সঙ্গে অনেক শিক্ষামূলক রচনা ও রম্যরচনা ইংরেজি থেকে বাংলায় অনুবাদও করেন।তিনি তার লেখনী শক্তির সর্বস্ব অকাতরে দিয়েছেন কিশোর সাহিত্যকে। ভূতের গল্প বলায় তার জুড়ি মেলা ভার। তার প্রথম গল্প লক্ষ্মীছাড়া ১৯২২ সালে সন্দেশ পত্রিকায় প্রকাশিত হয়। ১৯৬৩ সাল থেকে ১৯৯৪ অবধি সন্দেশ পত্রিকার সাম্মানিক সহ-সম্পাদক হিসেবে যুক্ত ছিলেন।

বিশ্বভারতীতে ইংরেজি শিক্ষিকা হিসাবে কর্মজীবনের শুরু। তার পর আশুতোষ কলেজে মহিলা বিভাগে। অনেকটা সময় আকাশবাণীতে প্রযোজক হিসেবে কাজ করেছেন। কিন্তু কর্মব্যস্ততা কখনই তার কলমকে থামিয়ে রাখতে পারেনি। বাংলা সাহিত্যের বৃহত্তর পরিসরকে এড়িয়ে বাচ্চাদের বেছে নিলেন তার পাঠক-পাঠিকা হিসেবে। যদিও বড়দের জন্য রচনা করেছেন কয়েকটি গ্রন্থ। তার আধুনিক দৃষ্টিভঙ্গি ও শব্দের ব্যবহার তাক লাগিয়ে দেওয়ার মতো। গুপির গুপ্তখাতা, হলদে পাখির পালক, কিংবা পদীপিসীর বর্মী বাক্স ইত্যাদি রচনা আল টাইম ফেবারিট। বড়দের জন্যও কলম ধরেছেন , পাকদণ্ডী , ‘আর কোনখানে’, রান্নার বই ইত্যাদি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *