ভারতে,জীবন্ত আগ্নেয়গিরি কোথায় আছে, কি অবস্থায় আছে- জেনে নিন।

3005bar1ভারতের একমাত্র জীবন্ত আগ্নেয়গিরি যার থেকে নিয়মিত অগ্নুৎপাত হয়। আন্দামান সাগরে ব্যারেন দ্বীপের এই আগ্নেয়গিরিকে আগুনে পাহাড় বলে সম্বোধন করে। এটি উত্তর- পূর্ব ভারত মহাসাগরের  ‘সুন্তা ভলক্যানিক আর্ক সিস্টেমের অন্তর্গত স্ট্র্যাটো ভলক্যানো শ্রেণীর আগ্নেয়গিরি, যার ভেতর ছাই, লাভা ইত্যাদি জমে শঙ্কুর আকার তৈরি করেছে।

পোর্টব্লেয়ার থেকে ১৩০ কিলোমিটার উত্তর পূর্বে ৩ কিলোমিটার চওড়া প্রায় দু কিলোমিটার জুড়ে রয়েছে আগ্নেয়গিরির জ্বালামুখ। মাটির ওপরে ৩৫৪ মিটার এবং মাটির নিচে ২২৫০ মিটার পর্যন্ত বিস্তৃত রয়েছে। জ্বালামুখটি তিনদিকে পাথরের দেওয়াল দিয়ে ঘেরা থাকলেও পশ্চিমদিকটি খোলা।

১১৭০০ বছর আগে ভু তাত্বিক ‘প্লিসটোসিন’ যুগের শেষের দিকে কোনও বিধ্বংসী অগ্নুৎপাতে পশ্চিম দিকের অংশটি ভেঙে গেছে বলে অনুমান।

ভু-তাত্ত্বিক গবেষকদের মতে ব্যারেন আগ্নেওগিরিতে প্রথম অগ্নুৎপাত হয় ১৬ লক্ষ বছর আগে। দীর্ঘদিন ঘুমিয়ে থাকার পর আগ্নেয়গিরিটি আবার জেগে ওঠে ১৭৫৭ সালে। আবার দীর্ঘ ঘুম থেকে জেগে ওঠে ১৮৫২ সালে। এরপর প্রায় ১৫০ বছর পার করে ১৯৯১ সালে আগ্নেয়গিরিটি ভয়াবহ ভাবে আবার জেগে ওঠে। এরপর মাঝে মধ্যে সামান্য আকারে সক্রিয় হতে দেখা গেছে। ২০১৭ সালে ১৫ই জানুয়ারি থেকে ১৭ জানুয়ারি পর্যন্ত শেষবারের মত সক্রিয় হতে দেখা গেছে। টুথপেস্টের মত থকথকে বালিস্টিক লাভা,অন্যান্য আগ্নেয় পদার্থ, লহর বা আগ্নেয়গিরি থেকে বেরিয়ে আসা কাদা, পাথর ইত্যাদির স্রোত এখনো চারিদিকে ছড়িয়ে আছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *